মায়াবতী: ভয়ংকর খুনের ঘটনায় জড়িয়ে পড়ে মেয়েটি, শুরু হয় নতুন গল্প…

মায়াবতী: ভয়ংকর খুনের ঘটনায় জড়িয়ে পড়ে মেয়েটি, শুরু হয় নতুন গল্প…

1061 Views0 Comments

মায়াবতী: ভয়ংকর খুনের ঘটনায় জড়িয়ে পড়ে মেয়েটি, শুরু হয় নতুন গল্প…

লিটন এরশাদ প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯ , ৪:১৯ অপরাহ্ণ

মায়াবতী আড্ডা

 

নিরাপদ নিউজ: এক মায়াবতী সন্ধ্যায় (৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর একটি রেষ্টুরেন্টে আলোকিত হয়েছিল বাংলা সিনেমার একঝাঁক তারকা ও সাংবাদিকদের উপস্থিতির সময়গুলো। জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা ও অভিনয় পরিবার থেকে উঠে আসা ইয়াশ রোহানের মায়াবী ছবি ‘মায়াবতী’। দুইদিন বাদেই সিনেমা হলে পর্দা উঠবে এই ছবির। এই উপলক্ষেই জমকালো এই আয়োজনটি করা হয়। অবশ্য আরও একটি বিষয় ছিল এই ছবির প্রযোজক আনোয়ার আজাদ তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে কানাডায় থাকছেন। দূরপ্রবাসে থেকে বাংলা সিনেমার প্রতি তার দরদ এই সন্ধ্যায় জানান দিলেন সবাইকে। অবশ্য তাঁর পেছনের ইতিহাস অনেক। শুধু এইটুকু বলা কানাডাসহ বিশ্বের অনেক দেশে অনুষ্ঠিত ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে তিনি জড়িত আছেন অনেকদিন ধরেই। ফিল্মের প্রতি ভালবাসা থেকে ছবির প্রযোজনায় আসা তার। অনুষ্ঠানে ছবি সংশ্লিষ্ট শিল্পী, কলাকুশলীসহ আগত অতিথিরা তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বাংলা ছবিকে প্রমোট করার আহবান জানান। সিনেমাহলে গিয়ে ছবি দেখার আহবান জানান। সবাই ছবিটি নিয়ে বেশ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

মায়াবতী ছবিটি ‘না, মানে না’-এমন সংলাপের উপর গড়ে উঠা গল্পে নির্মাণ করেছেন অরুণ চৌধুরী। ছবিটির গল্পে দেখা যাবে—মায়া নামে এক কিশোরী ছোটবেলায় মায়ের কাছ থেকে চুরি হয়ে যায়। তারপর তাকে বিক্রি করা হয় দৌলতদিয়ার রেড লাইট এরিয়ায়। সেখানে মায়াকে ধীরে ধীরে গড়ে তোলেন সংগীতগুরু খোদা বক্স। ওদিকে মায়ার গানের প্রেমে পড়েন একজন ব্যারিস্টার। একসময় ভয়ংকর খুনের ঘটনায় জড়িয়ে পড়ে মেয়েটি। শুরু হয় নতুন গল্প। নতুন সংগ্রাম। ছবির নাম ভূমিকায় ‘মায়া’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিশা। মূল আকর্ষণই এই ‘মায়া’ চরিত্রটি। যার কেন্দ্রবিন্দু তিশা।

তিশা বলেন, অনেক প্রতিবন্ধকতার মধ্যেও নির্মাতারা ছবি বানান শুধুমাত্র দর্শকদের জন্য। দর্শক যখন প্রেক্ষাগৃহে সপরিবারে ছবি দেখতে আসেন, তখনই আসলে সবার পরিশ্রম সার্থক হয়। আর ভবিষ্যতে নির্মাতাদের আরও ছবি বানাতে সাহস যোগায়। দর্শকদের বলতে চাই, তারা যেন ছবি দেখেন, তাদের মন্তব্য জানান এবং সাপোর্ট করেন। শুধু ‘মায়াবতী’ না, ইন্ডাস্ট্রিতে যত ছবি মুক্তি পাচ্ছে আমি সবগুলোর জন্যই আমার একই কথা। ছবিটিতে একটি সুন্দর মেসেজ রয়েছে। পৃথিবীর প্রত্যেক মানুষের না বলার অধিকার আছে-সবার উচিত এটাকে সম্মান করা। আর এই মেসেজটা নিয়েই অরুণ চৌধুরী ‘মায়াবতী’ ছবিটি নির্মাণ করেছেন। আমরা চেষ্টা করেছি বিষয়টি সুন্দরভাবে ছবিতে উপস্থাপন করতে। আমরা এই ছবির একটি বড় অংশের শুটিং করেছি দৌলতদিয়ার যৌনপল্লীতে। সেখানকার মানুষেরা আমাদের অনেক সহযোগিতা করেছেন। এর আগেও সেখানে ছবির শুটিংয়ের কাজে গিয়েছি। সেখানের প্রতিটি মানুষের জীবনে একটা করে গল্প রয়েছে। সেগুলো শুনলে ভেতর থেকে নাড়া দেবে। কিছু গল্প শুনলে বুক হাহাকার করে উঠবে। আবার কিছু গল্প ভালো লাগবে। আমি ওদের সঙ্গে খুব গল্প করেছি। ছবিটি তাদের ডেলিগেট করা উচিৎ।

এই সিনেমায় অভিনয়ের নানা অভিজ্ঞতা শেয়ার করে তিশা আরও বলেন, আমাদের দেশে এখন অনেক ভালো ভালো চলচ্চিত্র নির্মাণ হচ্ছে। আপনারা সিনেমা হলে আসলে, দেশের সিনেমার পাশে থাকলে আমারা আরও ভালো ছবি উপহার দিতে পারবো। মায়াবতী সিনেমাটির টিজার, ট্রেলার ও গান বেশ সাড়া পেয়েছি আমরা। আমার বিশ্বাস সিনেমাটি সবার ভালো লাগবে।
অরুণ চৌধুরীর সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা খুবই ভালো। তার সঙ্গে আগে সিনেমা (আলতাবানু) করার কথা ছিল, কিন্তু শিডিউল মেলেনি বলে করা হয়নি। ‘মায়াবাতী’র স্ক্রিপ্ট ওয়ান্ডারফুল। অরুণ দাদা সুন্দর একটি প্লট নিয়ে গল্পটা আমাকে বলেছে। গল্প পছন্দ হয়ে ব্যাটে মিলে যাওয়ায় কাজটি করেছি। আমরা অনেক কষ্ট করেছি সিনেমাটির জন্য। বিশেষ করে নির্মাতা অরুণ চৌধুরী অনেক পরিশ্রম করেছেন। দারুণ একটি ছবি বানিয়েছেন তিনি। দর্শকরা সেটা দেখলেই বুঝবেন।

ইয়াশ রোহান বলেন, ‘মায়াবতী’ আমার দ্বিতীয় সিনেমা। এর গল্পটা খুব চমৎকার। সিনেমাটির যে কয়টি জায়গায় সুযোগ ছিল, আমি ভালো করার চেষ্টা করেছি। এখন আমার ক্যারিয়ারে এমন একটি সিনেমা খুব দরকার ছিল। অনেক কিছু শিখেছি। সবাইকে পরিবার নিয়ে সিনেমাটি দেখার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।
অরুণ চৌধুরী বলেন, ছবিটি দেখে দর্শকরা হতাশ নিরাশ হবেন না। এই ছবির গল্পে আছে প্রেম, অনেক আনন্দ সাথে আরও আছে অনেক কষ্ট। এতে আছে একজন নারীর লড়াই ও প্রতিশোধের কাহিনী। ২ ঘণ্টা ২০ মিনিট ব্যাপ্তির মায়াবতী ছবির গল্প গড়ে উঠেছে ‘ওমেন ট্র্যাফিকিং’ নিয়ে। দৌলতদিয়ার রেড লাইট এরিয়াতে সিনেমাটির শুটিং হয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অভিনেত্রী আফরোজা বানু, অভিনেতা নরেশ ভুঁইয়া, সংগীতশিল্পী আগুন, মধু হই হই গানের গায়িকা গায়িকা অনন্যা আচার্য্য, অনন্য প্রতীক চৌধুরী, অনুলেখা চৌধুরী, শিশুশিল্পী মীম প্রমুখ। সাংবাদিকদের মধ্যে অনুভূতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন মনিরুল ইসলাম, সৈকত সালাহউদ্দিন ও লিটন এরশাদ। পুরো অনুষ্ঠানটির প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় ছিলেন রুম্মান রশীদ খান।
এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সঙ্গীত পরিচালক ফরিদ আহমেদ, নাট্য ও চলচ্চিত্র পরিচালক চয়নিকা চৌধুরী, নাট্যনির্মাতা, উপস্থাপক ও অভিনেতা তানভীর হোসেন প্রবাল, চলচ্চিত্র প্রযোজক আতিকুর রহমান লিটন প্রমুখ।
আনোয়ার আজাদ ফিল্মস ও অনন্য সৃষ্টি ভিশন প্রযোজিত এই ছবিতে প্রথমবার জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা ও ইয়াশ রোহান। আরও অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, রাইসুল ইসলাম আসাদ, দিলারা জামান, মামুনুর রশীদ, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, আফরোজা বানু, অরুণা বিশ্বাস, তানভীর হোসেন প্রবাল, আগুন প্রমুখ। শুক্রবার ১৩ সেপ্টেম্বর ছবিটি দেশব্যাপী মুক্তি পাচ্ছে।

Original News Link:http://www.nirapadnews.com/%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a7%9f%e0%a6%be%e0%a6%ac%e0%a6%a4%e0%a7%80-%e0%a6%ad%e0%a7%9f%e0%a6%82%e0%a6%95%e0%a6%b0-%e0%a6%96%e0%a7%81%e0%a6%a8%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%98%e0%a6%9f%e0%a6%a8%e0%a6%be/?fbclid=IwAR3WJdzC2Hyaum5Zs1CoXT2u2sUDH4SXKQYb4uM_Q_NLq8Yb_LdR2UB3pt0

Leave your thought